ফরহাদ মজহারের কোলকাতা মিশন

কোলকাতার এক দিদি, নাম তার রূপসা রায়, লিখেছেন, “আমি যতদূর বুঝি, ইসলামের নানা আখ্যান ইতিহাস ধরে ধরে ফরহাদ (মজহার) চেষ্টা করেন, এই পুঁজিবাদের বিরুদ্ধে মানুষকে একত্রিত করার। তাই জেহাদের অর্থ তাঁর অন্তর্দৃষ্টিতে সম্পূর্ণ অন্য, পৌত্তলিকতা তাঁর কাছে নেহাৎ মূর্তিপুজো নয়, বরং নিজেকে জাতি-গোত্র-বর্ণের পরিচয়ে পুতুল হিসেবে ট্রিট করার পাপ- যেখানে সকলে একই ঈশ্বরের সন্তান। আর সেই নিজ নিজ পৌত্তলিকতায় বাঁধা পড়া মানুষের বিরুদ্ধেই হয়তো আজকের দিনের জেহাদ। তাই জেহাদ পুঁজিতান্ত্রিকতার বিরুদ্ধে”।

খুবই মতলববাজী কথাবার্তা। কোলকাতার শিক্ষিত এই দিদি ও দাদারা পুঁজিতান্ত্রিকতার বিরুদ্ধে ‘জিহাদ’ করবেন বলছেন। সেই জেহাদ আবার মূর্তিপুজারীদের বিরুদ্ধে! নিজেদের ‘মুসলমান’ বলতে তাদের আপত্তি নেই যদি আপনি তাদেরকে ভিন্ন অর্থে মনে করেন। কি সে অর্থে? অতনু সিংহ নামের আরেকজন বলছেন এভাবে, “ইসলাম একটা জীবনচর্যা। সুফিবাদ সেই জীবনচর্যার হৃদয়ে। বহিরঙ্গে শরিয়তি, অন্তরঙ্গে মারফতি। এদিকে শরিয়ত-মারেফতের আলাপের পাশাপাশি মানুষ ভজনার লালনপন্থা চৈতন্যের কালামকে উদ্ধৃত করছে বারবার, বলছে বহিরঙ্গে রাধা আর অন্তরঙ্গে কৃষ্ণের কথা”৷

দেখেছেন কি মতলববাজী কথাবার্তা! এসব কথার আপনি সহজ অর্থ করলে খুব সহজেই ‘রূপক অর্থে’ বলে পিছলাতে পারবেন। নামাজ রোজা করাকে ইনারা মুসলমান বলছেন না, বলছেন আরবে মুহাম্মদ যেভাবে গোত্রের বিরুদ্ধে লড়েছিলেন সেই একইভাবে ইনারা লড়ছেন পুঁজিতান্ত্রিকতা, হিন্দুত্ববাদের বিরুদ্ধে। তাই ইনারা মুসলমানই! চিশতিয়া ও লালন অনুসারী বলে কথিত এই দুইজনের লেখা শেয়ার করেছেন বাংলাদেশের ফ্রড বলে খ্যাত ইসলামিক বামপন্থার বর্তমান তাত্ত্বিক প্রধান পুরুষ ফরহাদ মজহার। বাংলাদেশের যে গ্রুপটাকে আহমদ ছফার শিষ্য বলে আমরা জানি বা ছফাকে কোট করেন ইতিহাস বলতে গিয়ে, এই গ্রুপটার কাছে ফরহাদ মজহার বাংলাদেশের ‘শ্রেষ্ঠ বুদ্ধিজীবী’। কোলকাতার শিক্ষিত এই শ্রেণীটিও ফরহাদ মজহারকে গুরু বলছেন। তাই পুঁজিতান্ত্রিকতার বিরুদ্ধে সমাজতন্ত্রের কথা বলা এদেরকে ‘ইসলামিক বামপন্থি’ বলাটাও এখন আর খাটছেও না। কারণ তারা বলছেন যে কথা মার্কস বলেছেন সে কথা মুহাম্মদ ১৪০০ বছর আগেই বলে গেছেন! কাজেই মার্কসবাদী না হয়ে মুহাম্মদবাদী হওয়াই তো উচিত! আরো মজাটা হচ্ছে, যে কমিউনিস্টদের আপনারা ‘মুসলিম তোষণকারী’ বলে আখ্যা দিতেন বেচারা সেই কমিউনিস্টদেরকেই এরা ঘোরতোর বিরোধীতা করছে। তারা এদেরকে বলছেন ‘হিন্দু মধ্যবিত্ত ধর্মহীন কমিউনিস্ট’ বলে। এরাই সেই বিপদগামী কমিউনিস্ট যারা মুহাম্মদবাদী তড়িকার মুসলমান হতে পারেনি!

ফরহাদ মজহারের তড়িকা খুব যে নতুন তা কিন্তু নয়। এসব বহু আগে মাওলানা ভাসানী করে গেছেন। ভারতীয় উপমহাদেশের মুসলমানরাই এই তড়িকার কমিউনিজম করতেন। সবাই করতেন সেটা বলছি চট করে আবার বলে বসবেন না। মানে করতেন অনেকে। কিন্তু একদমই কমিউনিজমকে ইসলামেরই আদল দাবী করে মার্কের আগেই সবচেয়ে নিখুঁত তত্ত্ব দিয়েছিলেন মুহাম্মদ এরকম বলে নিজেদেরকে কমিউনিস্ট না বলে সবাইকে ‘মুসলমান’ হতে বলার তড়িকাটা অভিনব। ফরহাদ মজহার সেটাই করছেন।

জিহাদ খিলাফত নিয়ে কমিউনিস্টদের লেখা বই বহু আগে পড়েছিলাম। রীতিমত জিহাদকে বিপ্লব বলেছেন পূর্বাতন বামপন্থিরা! হিন্দু নামের সেই তাত্বিকরা এখন বেঁচে থাকলে দেখতেন, কোলকাতাতেই কত হিন্দু পুঁজিতান্ত্রিকতার বিরুদ্ধে বিপ্লব না বলে ‘জেহাদ’ বলছেন এবং নিজেদের মুসলমান বলতে আপত্তি নেই একই সঙ্গে নিজেকে ‘কমিউনিস্ট’ বলতে রাজি নন! এরা দলে মোটেই কম নয় যতটুকু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ঘুরে দেখলাম। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে ফরহাদ মজহারের অনুসারী আর ছফা অনুসারীদের দ্বিমত হওয়ার মত অনুসঙ্গ খুবই কম। বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ বিরোধী বলতে এটা টার্ম আছে। সেটা বাদ দিলে পাঁড় আওয়ামী লীগার ধর্মনিরপেক্ষবাদীও গভীরে একই রকম ‘মুসলমান’। কিন্তু কোলকাতার কি হবে? এই যে রূপসা রায়ের কথা বললাম, তিনি বলছেন কোলকাতার কফি হাউজ কেন্দ্রিক যে বুদ্ধিভিত্তিক চর্চা বা গ্রুপ তাদের জানাজা দিতে এরকম শত শত ফরহাদ মজহারকেই ডাকতে হবে!

ভারতের হিন্দুত্ববাদের বিরুদ্ধে এই মুসলমানবাদিরা আগামীতে কতখানি ভূমিকা রাখতে পারবে সেটা নিয়ে আপনারা তর্ক করবেন জানি। তবে এদের কথা জানিয়ে রাখা ভালো মনে করলাম। কারণ কেন জানি না আমার মনে হচ্ছে, আগামী দশ বছরের মধ্যে, জেএমবি আইএসের জঙ্গিদের আটক করলেই প্রবল বাধার মুখে পড়বে রাষ্ট্রগুলো! সেটা দুই পাড়েই। বাধাটা আসবে এইসব সুফিবাদী কমিউনিস্টদের কাছ থেকেই। সঙ্গে রইল ‘আদি কমিউনিস্টরা’! ঢাকার ভবিষ্যৎ এক রকম ৪৭ সালে দেশভাগের পর নির্ধারিত হয়েই গেছে। এবার দেখার পালা কোলকাতার…!

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ফেসবুক পেজ

সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email
Share on google
Google+
Share on linkedin
LinkedIn
Share on pinterest
Pinterest
Share on reddit
Reddit
Share on tumblr
Tumblr
Share on telegram
Telegram
Share on pocket
Pocket
Share on skype
Skype
Share on xing
XING
Share on stumbleupon
StumbleUpon
Share on mix
Mix